• ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

ব্রিটিশরাই প্রথম এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ১৯, ২০২৩
ব্রিটিশরাই প্রথম এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা,১৯ নভেম্বর, ২০২৩ ইং

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, হাজার বছর ধরে এদেশে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সহ বিভিন্ন ধর্ম, বর্ণ, গোত্রের লোক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির সঙ্গে বসবাস ও সহাবস্থান করে আসছিলো। কেননা, অসাম্প্রদায়িকতাই ছিলো হাজার বছরের ঐতিহ্যবাহী ও সমৃদ্ধ বাঙালি সংস্কৃতির মূলমন্ত্র। সেসময় বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের লোকমুখে রচিত হয় ও ছড়িয়ে পড়ে মৈমনসিংহ-গীতিকার বিভিন্ন জনপ্রিয় পালাগুলো। সে পালাগুলোর কাহিনী বিশ্লেষণে তখন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির যথার্থতা প্রতীয়মান হয়। পরবর্তীতে ব্রিটিশরা এদেশের শাসনভার লাভ করে। তারাই প্রথম এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে।

প্রতিমন্ত্রী আজ রাতে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠ্য ও বিশ্বের ২৩টি ভাষায় অনূদিত মৈমনসিংহ গীতিকার প্রকাশনার শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষ্যে ‘নৈবদ্য থিয়েটার’ এর সহযোগিতায় ‘বিশ্ব লোক সংস্কৃতি কেন্দ্র’ আয়োজিত আলোচনা সভা ও পালাগান অনুষ্ঠানে উদ্বোধকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

প্রধান অতিথি বলেন, বাংলা ভাষা, সাহিত্য ও সংস্কৃতিকে ভিত্তি করে বাংলাদেশ নামক জাতিরাষ্ট্রের জন্ম হয়েছে। পৃথিবীর ৩৫ কোটি বাংলা ভাষাভাষীর রাজধানী আমাদের মাতৃভূমি এ প্রিয় বাংলাদেশ। এটা আমাদের সৌভাগ্য যে বাংলাদেশই আজ সারাবিশ্বে বাংলা ভাষা, সাহিত্য, সংস্কৃতি চর্চার ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিচ্ছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, আমাদের মৈমনসিংহ-গীতিকার মূল ভাবাদর্শের দিকে নজর দিতে হবে। এটি বিশ্বসাহিত্যে অসাধারণ জায়গা দখল করে নিতে পারে। সেজন্য এটিকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তুলে ধরতে আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা গ্রহণ একান্ত আবশ্যক।

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ১৯৭৫ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত ২১ বছর সময়কালে এদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি আবারও বিনষ্ট হয় এবং এদেশের ভাগ্যাকাশে নেমে আসে অমানিশার ঘোর অন্ধকার। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশে সাম্প্রদায়িক সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতি পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয় যা অব্যাহত রয়েছে।

বিশ্ব লোক সংস্কৃতি কেন্দ্রের পরিচালক রাশেদুল হাসান শেলী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হিসাবে বক্তব্য রাখেন সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) এর চেয়ারম্যান ও সাবেক সিনিয়র সচিব মো. আবদুস সামাদ, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি মুহম্মদ নূরুল হুদা, বিশিষ্ট লোক গবেষক অধ্যাপক আফজালুর রহমান ভূঁইয়া, আচার্য দীনেশ চন্দ্র সেন রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক দেবকন্যা সেন, বিশিষ্ট বাউল সাধক ও সংগীত শিল্পী শফি মণ্ডল এবং বিশিষ্ট লোক সংগীত শিল্পী কুদ্দুছ বয়াতি।অনুষ্ঠানে মৈমনসিংহ গীতিকা অবলম্বনে ‘মলুয়ার পালা’ পরিবেশিত হয়।

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031