• ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর এমআইএস শাখার উদ্যোগে”বাংলাদেশ হেডিং টু স্মার্ট হেলথ”; বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত নভেম্বর ১০, ২০২৩
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর এমআইএস শাখার উদ্যোগে”বাংলাদেশ হেডিং টু স্মার্ট হেলথ”; বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেল এর গ্র্যান্ড বলরুমে বৃহস্পতিবার ০৯ নভেম্বর,২০২৩ ইং বিকাল ০৫:০০ ঘটিকার সময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর এমআইএস শাখার উদ্যোগে “বাংলাদেশ হেডিং টু স্মার্ট হেলথ”; বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপত্বি করেন অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম, মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনাব জাহিদ মালেক এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মাননীয় সচিব, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, জনাব মোঃ আজিজুর রহমান, মাননীয় সচিব, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ, ডা. রাশেদা সুলতানা, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ও অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবির, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) এবং Sangay Wangmo, Team Lead, Health system, WHO Representative to Bangladeshi অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনাব জাহিদ মালেক এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় মহোদয়,

“হেলথ বুলেটিন ২০২১ ও ডিজিটাল হেলথ স্ট্র্যাটেজি” -এর মোড়ক উন্মোচন; “১০০ (একশত) টি নতুন টেলিমেডিসিন সেন্টার ও টেলিমেডিসিন সফটওয়্যার” এবং “কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অটোমেশন” – এর শুভ উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন অধ্যাপক ডা. মোঃ শাহাদাত হোসেন, পরিচালক (এমআইএস) ও লাইন ডাইরেক্টর এইচআইএস এন্ড ই হেলথ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তিনি মাননীয় মন্ত্রী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সচিব, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ; সচিব, স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ, মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর সহ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে আগত অতিথিবৃন্দ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালকদ্বয়, পরিচালক এবং jvBb wW‡ities, wefvMxq cwiPvjKe Ges wmwfj সার্জন Gicti wmwfj সার্জন mn AvMZ mevB‡K, হাসপাতালের পরিচালকবৃন্দ, সিভিল সার্জন এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ আগত সবাইকে আজকের “স্মার্ট স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা” (Bangladesh Heading to Smart Health) শীর্ষক

অনুষ্ঠানে সবাইকে স্বাগত জানান।

তিনি তাঁর বক্তব্যে আরও উল্লেখ করেন যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বিগত দেড় দশকে স্বাস্থ্য খাত অভূতপূর্ব অগ্রগতি সাধন করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ ও সুযোগ্য নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে সবার জন্য স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করণের লক্ষে সবার জন্য ইলেক্ট্রনিক “স্বাস্থ্য কার্ড” ও ” হসপিটাল অটোমেশন” এবং স্মার্ট স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থাপনা নিশ্চিতকরণে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস শাখা সদা সচেষ্ট। সম্মানীত অতিথি Sangay Wangmo, WHO Representative to Bangladesh তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ

করেন যে, স্মার্ট স্বাস্থ্য তথ্য ব্যবস্থাপনা বাস্তবায়নে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারকে

সার্বিক সহায়তা প্রদান করা হবে। তিনি “হেলথ বুলেটিন ২০২১ ও ডিজিটাল হেলথ স্ট্র্যাটেজি” প্রকাশ ১০

(একশত) টি নতুন টেলিমেডিসিন সেন্টার ও টেলিমেডিসিন সফটওয়্যার” এবং হসপিটাল অটোমেশন এর

ভূয়সী প্রসংশা করেন। বিশেষ অতিথি ডা. অধ্যাপক আহমেদুল কবির, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, হেলথ বুলেটিন ২০২১ প্রকাশনায় বাংলাদেশের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কিত হালনাগাদ তথ্য সন্নিবেশিত রয়েছে। প্রকাশনাটি আমাদেরকে আগামী বছরগুলিতে কর্ম-পরিকল্পনা প্রণয়নে সহায়তা করবে। তথ্য সংগ্রহ, সংকলন, উপস্থাপনা এবং প্রকাশনার সাথে সংশ্লিষ্ট এমআইএস, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্তরিক অভিনন্দন জনান।

বিশেষ অতিথি ডা. রাশেদা সুলতানা, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন), স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহোদয় তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, স্বাস্থ্য বিভাগ ডিজিটাল হেলথ স্ট্রাটিজি ২০২৩ থেকে ২০২৭ প্রকাশ করছি।

আমাদের এই ডিজিটাল হেলথ স্ট্রাটিজি ৮টি গুরুত্বপূর্ণ বিল্ডিং ব্লক বা স্তম্ভের সমন্বয়ে প্রনীত হয়েছে। লিডারশীপ এবং গর্ভনেন্স, ডিজিটাল হেলথ ইনোভেশন, রিসার্স এবং পার টনার ইকো সিস্টেম সার্ভিস, এপ্লিকেশন স্ট্যান্ড, ইন্টার-অপারেবিলিটি, ইনফ্রাস্টাকচার লেগিন্সলেশন পলিসি, কমপ্লায়েন্স, স্ট্র্যাটেজি এবং ইনভেস্টমেন্ট এই ৮টি স্তরের সমন্বয়ে আমাদের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আরো দক্ষ এবং রোগী বান্ধব করবে।

বিশেষ অতিথি জনাব মোঃ সাইফুল্লাহিল আজম, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন অনুবিভাগ), স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, মহোদয় তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ সারাদেশে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণে কাজ করে যাচ্ছে। স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের তথ্য ভিত্তিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং নীতি প্রণয়নের ক্ষেত্রে হেলথ বুলেটিন-এ সন্নিবেশিত তথ্য মুখ্য ভূমিকা রাখবে বলে আমার বিশ্বাস।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনাব জাহিদ মালেক এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় মহোদয় তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন যে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার যে প্রত্যয় তা আমাদরে প্রিয় মাতৃভূমির ছোট্ট ভূখণ্ডে বসবাসকারী এই বিশাল জনগোষ্ঠীকে সার্বজনীন ও মানসম্মত উন্নত চকিৎসা সেবা দেয়ার লক্ষ্যে সঠিক দিকনির্দেশনা প্রদান করবে। স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট স্বাস্থ্যব্যবস্থা বিনির্মাণে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস শাখা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। জাতীয় পর্যায় থেকে শুরু করে কমিউনিটি ক্লিনিক ও ডমিসিলারী সার্ভিস প্রদানকারী স্বাস্থ্য সহকারী পর্যায় পর্যন্ত ইন্টারনেট সংযোগ ও বিভিন্ন ডিভাইজ প্রদান করা হয়েছে। যার ফলে অনলাইনে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও তার প্রতিবেদন তৈরী করা এবং প্রয়োজনে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা সম্ভব হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় অদ্য “হেলথ বুলেটিন ২০২১ ও ডিজিটাল হেলথ স্ট্র্যাটেজি” -এর মোড়ক উন্মোচন; “১০০ (একশত) টি নতুন টেলিমেডিসিন সেন্টার ও টেলিমেডিসিন সফটওয়্যার ” এবং “কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অটোমেশন” – এর শুভ উদ্বোধন করা হলো।

সভার সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মহোদয় তাঁর বক্তব্যে হেলথ বুলেটিন ২০২১ প্রকাশের জন্য এমআইএস, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কে ধন্যবাদ জানান। এই বার্ষিক প্রকাশনায় বাংলাদেশের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি সম্পর্কিত হালনাগাদ তথ্য সন্নিবেশিত রয়েছে। এই ধরণের একটি বিশাল প্রকাশনা বের করে আনা একটি কষ্টসাধ্য কাজ। এটি লক্ষণীয় যে এমআইএস-এর সামগ্রিক তথ্য ব্যবস্থাপনার ব্যাপক অগ্রগতি সম্পন্ন হয়েছে এবং এর বিস্তৃতি এখন কমিউনিটি ক্লিনিকের স্তর পর্যন্ত পৌঁছেছে যা তথ্যকে আরও সহজলভ্য করেছে। তিনি সভার প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি এবং অংগ্রহণকারীগণকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031