• ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

হাকিমপুরী জর্দার প্রতিষ্ঠাতা পুরান ঢাকার কাউস মিয়া সেরা করদাতা নির্বাচিত হয়েছেন।

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৭, ২০২৩
হাকিমপুরী জর্দার প্রতিষ্ঠাতা পুরান ঢাকার কাউস মিয়া সেরা করদাতা নির্বাচিত হয়েছেন।

পুরান ঢাকার কাউছ মিয়া বাংলাদেশের একজন স্বনামধন্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী।তিনি হাকিমপুরী জর্দার স্বত্বাধিকারী এবং চেয়ারম্যান।নীতি, আর্দশ,ও সততা,গুণগুলো ঘিরে ব্যবসায়ী কাউস মিয়া।এই ব্যবসায়ী আগে ও সেরা করদাতা হিসেবে নির্বাচিত হন।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) তাকে মুজিববর্ষে নানান আয়োজন এর মাধ্যমে সেরা করদাতা হিসেবে তাকে বিশেষ সম্মাননা উপহার পান।যা চিরস্মরণীয় হয়ে আছে এখনো।

দেশের সব বড় বড় ব্যবসায়ীদের পিছনে ফেলে সততা ও নীতি আর্দশ ধরে রেখে আবার ও দেশে সেরা করদাতা হয়েছেন টানা ১৫ বার পুরান ঢাকার কাউস মিয়া।মোঃ কাউছ মিয়া হাকিমপুরী জর্দা প্রস্তুতকারী কোম্পানির স্বত্বাধিকারী। ২০২২-২৩ করবর্ষে ‘ব্যবসায়ী’ শ্রেণিতে সেরা করদাতার সম্মাননা পেয়েছেন বিখ্যাত জর্দা ব্যবসায়ী।

বিশেষ সম্মাননা যারা অর্জন করেছেন চলতি বছর ব্যবসায়ী ক্যাটাগরিতে মো. কাউছ মিয়ার পাশাপাশি গাজী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গাজী গোলাম মুর্তজা, ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজের ভাইস চেয়ারম্যান এস এম আশরাফুল আলম ও চেয়ারম্যান এস এম শাসছুল আলম এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম মাহবুবুল আলমকে সেরা করদাতা নির্বাচিত করা হয়েছে।

দেশের সিনিয়র সিটিজেন হিসেবে গত বছর ব্যবসায়ী ক্যাটাগরিতে মো. কাউছ মিয়াকে সেরা করদাতা নির্বাচিত করা হয়েছিল। চলতি বছরে ব্যক্তি, কোম্পানি ও অন্যান্য ক্যাটাগরিসহ মোট ১৪১ জনকে সেরা করদাতা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ অধিশাখা-২ (কর)-এর সিনিয়র সহকারী সচিব নুসরাত জাহান নিসুর সই করা প্রজ্ঞাপন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

তিনি পাকিস্তান সরকারের সময় ১৯৬৭ সালে শীর্ষ করদাতা হয়েছিলেন।২০০৮ সাল থেকে কাউছ মিয়া দেশে ব্যবসায়ী শ্রেণিতে সর্বোচ্চ করদাতার মধ্যে বিশেষ একজন। গত ৬১ বছর ধরে সঠিকভাবে কর দিয়ে আসছেন তিনি।১৯৫৮ সাল থেকে তিনি প্রথম কর দেওয়া শুরু করেন। তার মূল ব্যবসা হচ্ছে তামাক বেচাকেনা।তামাক বেচাকেনা তার প্রধান ব্যবসা ও সম্মান মনে করেন।এই ব্যবসা থেকে তিনি আজকে এত বড় ব্যবসায়ীতে পরিনত এবং শ্রেষ্ঠ করদাতা নির্বাচিত হয়েছেন।

এনবিআরের এক জাঁকজমক অনুষ্ঠানে ২০১৯ সালে তিনি বলেছিলেন,আমার টাকা-পয়সা ‘আগে আমি এখানে-সেখানে রাখতাম। এতে নানা ধরনের ঝামেলা ও ঝুঁকি থাকত। ১৯৫৮ সালে প্রথম কর দিয়ে আমি “ফ্রি” হয়ে গেলাম।তারপর থেকে সব টাকা-পয়সা ব্যাংকে রাখতে শুরু করলাম।সব হিসাব-নিকাশ পরিষ্কার করে রাখলাম।এখন ’নিজের খুব ভাল লাগে।বাড়তি কোন ঝামেলা থাকে না।জাতীয় ট্যাক্স কার্ড নীতিমালা, ২০১০ (সংশোধিত) অনুযায়ী ২০২২-২৩ করবর্ষের জন্য খেলোয়াড়সহ সেরা করদাতা মোট ১৪১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামের তালিকা প্রকাশ করেছে এনবিআর। এর মধ্যে ব্যক্তি ৭৬ জন, কোম্পানি ৫৪টি ও অন্যান্য শ্রেণিতে ১১ জন। এরই মধ্যে এ-সংক্রান্ত সরকারি গেজেটও প্রকাশ করা হয়েছে। সেখান থেকেই এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এনবিআর ২০১৬ সাল থেকে সেরা করদাতাদের ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা দিয়ে আসছে সুনামের সাথে।সমস্ত করদাতাদের দিয়েছে সম্মাননা।আনুষ্টানিকভাবে এনবিআর জাতীয় ভ্যাট দিবসে সেরা করদাতাদের বিশেষ সম্মাননা ও ট্যাক্স কার্ড দেবেন ডিসেম্বর মাসের ১০ তারিখে।

July 2024
S S M T W T F
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031